অ্যাপোলো হাসপাতালের ফার্মেসিতে ‘নকল’ ওষুধ | ইবিডি নিউজ
শনিবার, জুন ২৩পরীক্ষা মূলক

অ্যাপোলো হাসপাতালে ‘নকল’ ওষুধ

রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালের ফার্মেসিতে ক্যান্সার ও হৃদরোগের ওষুধসহ ৩০ ধরনের নকল ওষুধ বিক্রি হচ্ছিল বলে র‌্যাব জানিয়েছে।

এই অপরাধে ঢাকার অভিজাত এই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে তিন লাখ টাকা জরিমানা করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। পাশাপাশি হাসপাতালের পরীক্ষাগারে মেয়াদ উত্তীর্ণ রি এজেন্ট পাওয়ায় তাদের আরও ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে ওই অভিযানের পর র‌্যাবের নির্বাহী মেজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম বলে, গত বৃহস্পতিবার গুলশানের নিকুঞ্জের ১৭ নম্বর সড়কের একটি নকল ওষুধ কারাখানায় অভিযান চালিয়ে দেলোয়ার হোসেন নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেন তারা।

“এই ওষুধ কারাখানায় বিদেশি বিভিন্ন কোম্পানির নাম দিয়ে নানা ধরনের নকল ওষুধ তৈরি করা হত। সেই সব ওষুধ অ্যাপোলো হাসপাতালের ফার্মেসিতে গত পাঁচ বছর ধরে সরবরাহ করে আসছে বলে দেলোয়ার জানায়। সেখান থেকে অ্যাপোলো হাসপাতালে নকল ওষুধ সরবরাহ ও টাকা লেনদেনের বেশ কিছু প্রমাণও পাওয়া যায়।”

বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় এখন কারাবন্দি দেলোয়ারের দেওয়া তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও ওষুধ প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয় করে অ্যাপোলো হাসপাতালে অভিযানে যাওয়া হয় বলে জানান ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম।

হাসপাতালের ফার্মেসি থেকে ৩০ আইটেমের তিন কার্টন ওষুধ জব্দ করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এর মধ্যে ক্যান্সার, হৃদরোগসহ বিভিন্ন রোগের ওষুধ রয়েছে।

নকুল ওষুধের দাম হিসেবে দেলোয়ার এখনও অ্যাপোলো হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে সাত লাখ টাকা পাবে বলে জানান তিনি।
ফার্মেসির পর অ্যাপোলোর ল্যাবরেটরিতে অভিযান চালায় র‌্যাব। সেখানে বিভিন্ন পরীক্ষার জন্য রাখা মেয়াদ উত্তীর্ণ ক্যামিকেল (রি এজেন্ট) পাওয়া যায় বলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার জানান।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অ্যাপোলো হাসপাতালের উপ-মহাব্যবস্থাপক জামিল আহমেদ বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে মঙ্গল বা বুধবার সাংবাদিকদের বিস্তারিত জানাবেন তারা।