অর্থনীতি Archives | ইবিডি নিউজ
শনিবার, জুন ২৩পরীক্ষা মূলক

অর্থনীতি

অর্থমন্ত্রীর বক্তব্যে দলের নেতাদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

অর্থমন্ত্রীর বক্তব্যে দলের নেতাদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক
সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের অর্থপাচার যৎসামান্য। গত মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে ৩০০ বিধিতে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের দেয়া বিবৃতিতে দলের নেতাদের মধ্যেই মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। কেউ বলছেন, অর্থমন্ত্রীর কাছে এ টাকা যৎসামান্য হতে পারে তবে আমাদের কাছে অনেক টাকা। আবার কেউ বলছেন, সুইস ব্যাংকের সঙ্গে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা যে লেনদেন করেন তার পরিষ্কার ধারণা দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে জানা গেছে, অর্থমন্ত্রীর ওই বিবৃতিতে আওয়ামী লীগের অনেক নেতাই ক্ষুব্ধ হয়েছেন। তারা বলছেন, অর্থমন্ত্রী মাঝে মধ্যে যে বক্তব্য দেন তা দলের জন্য ক্ষতিকর হয়। দলের নেতারা বলছেন, সব সত্য সব সময় বলা উচিত নয়। এটি নিয়ে বিরোধী রাজনীতিকরা নির্বাচনের আগে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। তারা বলেন, এর আগে অর্থমন্ত্রী সোনালী ব্যাংকের চার হাজার কোটি টাকার ঋণ জালিয়াতি নিয়ে বে
অর্থ উদ্ধারে কাজ কর‌বে নিউইয়র্ক ফেড ও সুইফট

অর্থ উদ্ধারে কাজ কর‌বে নিউইয়র্ক ফেড ও সুইফট

নিজস্ব প্রতিবেদক
বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থে‌কে চুরি হওয়া পুরো অর্থ পুনরুদ্ধারে একসঙ্গে কাজ কর‌বে ব‌লে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্ক ও আন্তর্জাতিক লেনদেনের বার্তা আদান-প্রদানকারী সংস্থা সুইফট। মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক এ তথ্য জা‌নি‌য়ে‌ছে। বাংলা‌দেশ ব্যাংক জানায়, সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্ক ও বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিনিধিদের মধ্যে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সোসাইটি ফর ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ইন্টার ব্যাংক ফিন্যান্সিয়াল টেলিকমিউনিকেশনের (সুইফট) কর্মকর্তা ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নেন। এ সময় সব পক্ষ রিজার্ভ চুরির পুরো অর্থ পুনরুদ্ধারে একসঙ্গে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দেয়। প্রসঙ্গত, গত বছর ফেব্রুয়ারিতে ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংকে রক্ষিত বাংলাদেশ ব্যাংকের ৯৫ কোটি ১০ লাখ ডলার হাতিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে হ্যাকাররা। তবে ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার তারা চুরি করতে সমর্থ হয়। এ অর্থ
সঞ্চয়পত্রের সুদের হার নির্দিষ্ট থাকতে পারে না: অর্থমন্ত্রী

সঞ্চয়পত্রের সুদের হার নির্দিষ্ট থাকতে পারে না: অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
অনন্তকালের জন্য সঞ্চয়পত্রের সুদের হার নির্দিষ্ট থাকতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। বুধবার জাতীয় সংসদে তিনি এ মন্তব্য করেন। অর্থমন্ত্রী বলেন, `সুদের হারের সঙ্গে মূল্যস্ফীতির গভীর সম্পর্ক রয়েছে। মূল্যস্ফীতি বাড়লে সুদের হার বাড়ে আর মূল্যস্ফীতি কমলে সুদের হার কমে। এ কারণে সঞ্চয়পত্রের সুদের বিষয়ে আমাদের পুনর্বিবেচনা করতে হবে।’ তিনি উল্লেখ করেন, ‘লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় সঞ্চয়পত্র হতে অধিক ঋণ গ্রহণ করার ফলে সুদ বাবদ ব্যয় বৃদ্ধি পাচ্ছে। যা সরকারের ব্যয় ব্যবস্থাপনার ওপর একটি বড় ধরনের চাপ সৃষ্টি করছে। এই বাস্তবতার বিষয়টি আমি বিভিন্ন ফোরামে উত্থাপন করেছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘জাতীয় সঞ্চয়পত্রের সুদের হার নির্ধারণের কারণে কোনও পেনশনভোগী, নিম্ন মধ্যবিত্ত বা মধ্যবিত্ত কেউ যাতে উল্লেখযোগ্যভাবে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সে বিষয়টি আমাদের সক্রিয় বিবেচনায় রয়েছে। আমরা চাচ্ছি সঞ্চয়পত্রের মাধ
৫ লাখ টাকা পর্যন্ত আমানতে আবগারি শুল্ক দেড়শ’ টাকা

৫ লাখ টাকা পর্যন্ত আমানতে আবগারি শুল্ক দেড়শ’ টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক
ভ্যাট আইন প্রত্যাহার ও বাজেটে ব্যাংক আমানতের ওপর প্রস্তাবিত আবগারি শুল্ক পুনর্মূল্যায়নের জন্য অর্থমন্ত্রীকে পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসব বিষয়ে সংশোধনী এনেই অর্থবিল বিল পাস করতে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি। বুধবার প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আলোচনাকালে প্রধানমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন। প্রধানমন্ত্রী বাজেটের ওপর আলোচনাকালে আবগারি শুল্ক বিষয়ে বলেন, ‘ব্যাংকের আমানতের ওপর আবগারি শুল্ক নিয়ে মানুষ উল্টো বুঝেছেন। বিদ্যমান ব্যবস্থায় ২০ হাজার টাকার ওপর বেশি আমানত হলে আবগারি শুল্ক দিতে হয়, অর্থমন্ত্রী সেটাকে বাড়িয়ে এক লাখ টাকা পর্যন্ত শুল্কমুক্ত করেছেন। কিন্তু, এটা নিয়ে মানুষ ভুল বুঝেছে, অপপ্রচার হয়েছে। অর্থমন্ত্রী এটা পরিষ্কার করে দেবেন।’ তিনি বলেন, ‘আমি অর্থমন্ত্রীকে এ বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছি। তিনি এক লাখ টাকা পর্যন্ত শুল্কমুক্ত রাখার যে প্রস্তাব রেখেছেন
দুই বছরের জন্য ভ্যাট আইন স্থগিতের পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর

দুই বছরের জন্য ভ্যাট আইন স্থগিতের পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক
আগামী দুই বছরের জন্য নতুন ভ্যাট আইন স্থগিতের পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই দুই বছর আগের ১৯৯১ সালের আইনেই ভ্যাট আদায় করা হবে। বুধবার (২৮ জুন) জাতীয় সংসদে বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতকে এ পরামর্শ দেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘নতুন ভ্যাট আইন নিয়ে যেহেতু কথা উঠেছে, ব্যবসায়ীরাও এই আইনে তেমন সাড়া দিচ্ছেন না, সে কারণে আমি মনে করি এই আইন আগে যেমন ছিল আগামী দুই বছরও তেমনই থাকবে।’ নতুন ভ্যাট আইন আগামী অর্থবছর থেকে কার্যকর না হওয়ায় চাপ বাড়বে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) ওপর। রাজস্ব আদায় বাড়াতে তাদের নতুন করে পদক্ষেপ নিতে হবে। তা না হলে নতুন বাজেটে ভ্যাটে যে লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে, তা অর্জন করা কঠিন হবে। এবারের বাজেটে ভ্যাট আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৯১ হাজার কোটি টাকা। নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়ন না হওয়ায় সরাসরি ভ্যাট থেকে আদায় কমবে বড় অঙ
রমজানে পণ্যের দাম বাড়ালেই ব্যবস্থা: বাণিজ্যমন্ত্রী

রমজানে পণ্যের দাম বাড়ালেই ব্যবস্থা: বাণিজ্যমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক
রমজানে পণ্যের কৃত্রিম সংকট তৈরি করলে বা কারসাজি করে পণ্যের দাম বাড়ালে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেছেন, ‘বর্তমানে দেশে ছোলা, ডাল, চিনি, পেঁয়াজ ও রসুন চাহিদার চেয়ে অনেক বেশি মজুদ রয়েছে। তাই রমজান মাসে এসব পণ্যের দাম স্বাভাবিক থাকবে। কিন্তু কেউ যদি কৃত্রিম সংকট কিংবা কারসাজি করে দাম বাড়ানোর চেষ্টা করে তবে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ শুক্রবার (১২ মে) রাতে ভোলা চেম্বার অব কর্মাস অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি’র আয়োজনে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় তিনি এসব কথা বলেন। তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) মাধ্যমে যে পরিমাণ চিনি আমদানি করা হয়েছে তা চাহিদার তুলনায় অনেক বেশি। আন্তজার্তিক বাজারে চিনির দাম গত বছরের তুলনায় ৯ শতাংশ কম। সুতরাং আন্তর্জাতিক বাজারের দোহাই দিয়েও দেশের বাজারে চিনির দাম বাড়ানো যাবে
অবৈধ মজুদের সন্ধানে বাজারে গোয়েন্দা টিম

অবৈধ মজুদের সন্ধানে বাজারে গোয়েন্দা টিম

নিউজ ডেস্ক
নিত্যপণ্যের অবৈধ মজুদের সন্ধানে বাজারে নামছে গোয়েন্দা টিম। এই টিমে দেশের চারটি গোয়েন্দা সংস্থার সদস্য ছাড়াও থাকছেন র‌্যাব, পুলিশ ও আনসার সদস্য। অবৈধ মজুদের সন্ধান পেলে মজুদকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে। রমজানে কারসাজি করে নিত্যপণ্যের দাম বাড়ালে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে—প্রতি বছর সরকারের এমন সতর্কবার্তার কারণে এবার ব্যবসায়ীরা নতুন ফন্দিতে আগেই ধাপে ধাপে নিত্যপণ্যের দাম বাড়িয়েছেন। এর ওপর অকালবন্যা ও টানা বৃষ্টিতে দেশের বিভিন্ন এলাকায় ফসলের ক্ষতি এবং ডলারের দাম বেড়ে যাওয়ায় নিত্যপণ্যের দাম পাগলাঘোড়ার মতো বেড়েই চলেছে। বাজার ঘুরে দেখা গেছে, আসন্ন রমজানকে কেন্দ্র করে বাড়ছে সব ধরনের নিত্যপণ্যের দাম। নানা অজুহাতে এরই মধ্যে বাড়ানো হয়েছে ছোলা, চিনি, চাল, আটা, ডাল, ডিম, ভোজ্যতেলসহ সব ধরনের নিত্যপণ্যের দাম। ব্যবসায়ীর
পর্যটনে গতি আসবে নদীভিত্তিক অর্থনীতিতে

পর্যটনে গতি আসবে নদীভিত্তিক অর্থনীতিতে

নিউজ ডেস্ক
পর্যটনের অন্যতম অনুসঙ্গ প্রকৃতি, ইতিহাস ও ঐতিহ্য। নদীমাতৃক বাংলাদেশে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও ইতিহাসসমৃদ্ধ প্রায় চারশ নদী আছে। এসব নদী সংরক্ষণ, নদীভিত্তিক পর্যটনের গবেষণা, পরিকল্পনা ও প্রচারণার উদ্যোগ নিলে অর্থনীতিতে গতি আসবে বলে মনে করছেন শংশ্লিষ্টরা। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের তথ্য মতে, দেশে নদীর সংখ্যা ৪০৫টি। এরমধ্যে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে ১০২টি, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে ১১৫টি, উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ৮৭টি, উত্তর-কেন্দ্রীয় অঞ্চলে ৬১টি, পূর্ব-পাহাড়ি অঞ্চলে ১৬টি এবং দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ২৪টি নদী আছে। বড় নদীর মধ্যে রয়েছে পদ্মা, মেঘনা, যমুনা, ব্রহ্মপুত্র, কর্ণফুলী, শীতলক্ষ্যা, গোমতী। প্রতিবেশী ভারত এবং মিয়ানমারের সঙ্গে আন্তঃসীমান্ত নদীর সংখ্যা প্রায় ৫৮টি। যার মধ্যে ভারতের সঙ্গেই রয়েছে ৫৫টি। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে কোস্টাল ও প্রটোকল রুটে যাত্রী ও পর্যটন সেবায় স
বিশ্ববাজারে সুন্দরবনের কাঁকড়া

বিশ্ববাজারে সুন্দরবনের কাঁকড়া

নিজস্ব প্রতিবেদক
সুন্দরবনের কাঁকড়া এখন যাচ্ছে বিশ্ববাজারে। আন্তর্জাতিক বাজারে ব্যাপক চাহিদা থাকায় কাঁকড়া চাষে আগ্রহ দেখাচ্ছেন মংলাসহ সুন্দরবনের আশপাশ এলাকার চাষিরা। এ অঞ্চলের চাষিরা তাদের পুকুর, ডোবা ও খালে ব্যাপক হারে কাঁকড়া চাষ করতে শুরু করেছেন। ইতোমধ্যে এ কাঁকড়া চাষে ব্যাপক সফলতাও পেয়েছেন তারা। সুন্দরবনের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ও কাঁকড়া চাষিদের সঙ্গে আলাপকালে এই তথ্য জানা গেছে। রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো সূত্রে জানা গেছে, সুন্দরবনের কাঁকড়া চাষিদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেওয়াসহ প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে পারলে প্রতি বছর এ খাত থেকে কয়েকশ’ কোটি টাকার বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন সম্ভব। অনুসন্ধানে জানা গেছে, প্রতি বছর আন্তর্জাতিক বাজারে কাঁকড়ার চাহিদা বাড়ার পাশাপাশি দামও বাড়ছে। আষাঢ় থেকে কার্তিক মাস পর্যন্ত কাঁকড়ার মৌসুম। এসময় সুন্দরবন সংলগ্ন এলাকার সহস্রাধিক জেলে বনবিভাগ থেকে নির্দিষ্ট রাজস্বের বিনিময়ে পারমিট সংগ্রহ করে সুন্দরব
অস্থির নিত্যপণ্যের বাজার, রবিবার ব্যবসায়ীদের ডেকেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী

অস্থির নিত্যপণ্যের বাজার, রবিবার ব্যবসায়ীদের ডেকেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক
রোজা আসতে সময় বাকি এখনও প্রায় একমাস। অথচ এরইমধ্যে অস্থির হয়ে উঠছে দেশের নিত্যপণ্যের বাজার। মাসখানেকের ব্যবধানে বেড়েছে, চাল, তেল, সয়াবিন, মসুর ডাল, ছোলা ও চিনির দাম। মাংস, মাছ ও সবজির দাম বেড়েছে আগেই। বাজারে সব পণ্যের মজুদ ও সরবরাহ পর্যাপ্ত। এর পরেও নিত্যপ্রয়োজনীয় সব ধরনের পণ্যের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। এবারের অজুহাত অনেক। প্রথম অজুহাত ডলারের মূল্যবৃদ্ধি, দ্বিতীয় অজুহাত অতিবৃষ্টি। তৃতীয় অজুহাত বন্যা। এবছর এই তিন অজুহাতে নিত্যপণ্যের বাজারকে অস্থির করে তুলেছেন ব্যবসায়ীরা। তাই, করণীয় নির্ধারণে ব্যবসায়ীদের ডেকেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। রবিবার দুপুরে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করবেন মন্ত্রী। এ বৈঠকে এফবিসিসিআই’র সভাপতিসহ আমদানিকারক, পাইকারি ও খুচরা ব্যবসায়ী নেতাদের বৈঠকে উপস্থিত থাকার জন্য বলা হয়েছে। এ বৈঠকে রাজধানীর বড় কয়েকটি বাজার সমিতির নেতাদেরও ডাকা